ফাঁদে ধরা পরল ছোট আকৃতির একটি এলিয়েন!

alienএলিয়েন দেখার ঘটনা ইতিপূর্বে অনেক ঘটেছে। কিন্তু মেক্সিকোতে ২০০৭ সালে এলিয়েন নিয়ে এক অদ্ভুত ঘটনা ঘটেছে। এক কৃষক তার কৃষি খামার ঘুরে দেখার জন্য বের হলেন। তিনি শিয়াল মারার জন্য কিছু ফাঁদ পেতেছিলেন। কিন্তু সেদিন সে ফাঁদে কোন শেয়াল পেলেন না পেলেন একটি অদ্ভুত প্রাণী। আসলে কৃষকটিকে দেখে পালানোর চেষ্টা করার সময় ঐ প্রানীটি (এলিয়েন) ধরা পরে। তার মতে সেখানে আরও একটি প্রানী ছিল কিন্তু সেটা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। সে প্রানীটি ধরার পর কৃষক তাকে জলে ডুবিয়ে মেরে ফেলেন।
পরে মৃতদেহটি বিজ্ঞানাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রথমে সবাই অস্বীকার করলেও পরে স্বীকার করে যে, এই ধরনের প্রানী পৃথিবীতে পাওয়া যায় না। তারা আরও জানায় প্রানীটি মানুষ এবং গিরগিটি প্রজাতির শংকর ধরনের। সবচেয়ে মজার যে তথ্য এ পর্যন্ত পাওয়া যায় তা হল প্রানীটি অক্সিজেন ছাড়া বেঁচে থাকতে সক্ষম। বৈজ্ঞানিকরা ডিএনএ সংগ্রহ করেছে।

তার কিছু দিন পরে যখন কৃষকটি গাড়ি করে যাচ্ছিলেন হঠাৎ তার গাড়িতে আগুন লেগে যায়। খবর পেয়ে যখন অগ্নির্নিবাহক কর্মী আগুন নিভানোর জন্য এলো তার প্রচন্ড তাপের জন্য আগুন নিভাতে বাঁধা পেতে থাকে। ফায়ার ফাইটারদের কথা অনুযায়ী আগুনের তাপমাত্রা এতই বেশি ছিলো তা সবার কাছে অসহনীয় ছিল। আমাদের আসেপাশে এমন কিছু পাওয়া যায় না যা এত বেশি পরিমানে তাপমাত্র সৃষ্টি করতে পারে। তার গাড়িতেও তেমন কোন কিছুর নমুনা মেলেনি।

হঠাৎ তার গাড়িতে আগুন লাগলো কিভাবে? এতো বেশি তাপমাত্রা তৈরি হলো কিভাবে? তা হলে কি পালিয়ে যাওয়া এলিয়েনটি অন্য এলিয়েনটি মারার প্রতিশোধ নিলো?

এসব প্রশ্নের উত্তর আজও সবার কাছে অজানা। অনেক বৈজ্ঞানিক এলিয়েনের অস্তিত্ব খুজছেন হয়তো অচিরেই সব প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে।

–অনলাইন হতে সংগৃহীত

Shortlink:

Q&A

You must be logged in to post a comment Login