শিশু জিয়াদকে মৃত ঘোষণা করেছেন চিকিৎসক

শিশু জিয়াদ পাইপের ভেতর থেকে উদ্ধাররাজধানীর শাহজাহানপুরের রেলওয়ে মাঠসংলগ্ন পানির পাম্পের ৬০০ ফুট গভীর একটি পাইপে পড়ে যায় জিয়াদ নামের শিশুটি। এমনটি প্রথম থেকেই বলা হচ্ছিল। আজ দুপুরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ২৩ ঘণ্টা পর শিশু জিয়াদের উদ্ধার কাজ আনুষ্ঠানিকভাবে স্থগিত ঘোষণা করার পর পরই জিয়াদকে উদ্ধার করা হয়। তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার রিয়াজ মোর্শেদ জিয়াদকে মৃত ঘোষণা করেন।
যখন প্রেস ব্রিফিং এ কথা বলছিলেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তখনই আরেক দল সেই পাইপের ভেতর থেকে শিশু জিয়াদকে উদ্ধার করা হয়। তাকে উদ্ধার করে শাহজাহানপুরের বাসার দিকে নিয়ে যাওয়া হয়। তাকে মেডিক্যাল কলেজের উদ্দেশে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।
স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল রাতে বলেন পাইপের ভেতর কোনো শিশু পাওয়া যায়নি। ন্যাশনাল সিকিউরিটিজ ইন্টেলিজেন্সের (এনএসআই) যুগ্ম পরিচালক আবু সাঈদ পাইপে শিশু পড়ে যাওয়ার বিষয়টিকে শুধুই গুজব বলে উড়িয়ে দেন।
রেলওয়ে পাম্প থেকে প্রায় ১০০ গজ দূরে রেলওয়ে কলোনির একটি বাড়ির দোতলার একটি কক্ষে পরিবারের সঙ্গে থাকত জিহাদ। তার বাবা নাসির উদ্দিন মতিঝিলের একটি বিদ্যালয়ের নিরাপত্তাকর্মী। দুই ভাই, এক বোনের মধ্যে জিহাদ সবার ছোট।

Shortlink:

Q&A

You must be logged in to post a comment Login